নেত্রকোণায় টিসিবি’র ১৪৮ বস্তা চাল জব্দ ডিলার ও ক্রেতার বিরুদ্ধে মামলা

বিশেষ প্রতিনিধি: নেত্রকোণার বারহাট্টায় কালোবাজারে বিক্রয় করে দেওয়ার অভিযোগে টিসিবি’র ১৪৮ বস্তা চাল জব্দ করেছে স্থানীয় প্রশাসন। এ ঘটনায় টিসিবি ডিলার ও চালের ক্রেতার বিরুদ্ধে মামলা করছে প্রশাসন।
মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে অভিযান চালিয়ে উপজেলার চিরাম ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় ও পার্শ্ববর্তী বামনগাঁও গ্রামের সমুজ মিয়ার বাড়ি থেকে এই চাল জব্দ করা হয়। পরে জব্দকৃত চাল থানার গোদামে সংরক্ষিত রাখা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ফারজানা আক্তার ববি অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ ফয়জুর রহমান ও থানার এসআই হারুনসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। বুধবার ইউএনও ফারজানা আক্তার ববি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার চিরাম ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে কার্ডধারীদের টিসিবি পণ্য চাল, ডাল ও সয়াবিন তেল বিতরণ করা হয়। ওইসব চাল কার্ডধারীদের কাছ থেকে কম দামে ক্রয় করে এক ব্যক্তি। ১১৪টি বস্তা চাল (প্রতি বস্তা ৫০ কেজি) বামনগাঁও গ্রামের একটি বাড়িতে রাখা হয়। পরে গোপন খবরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারজানা আক্তার ববি অভিযান চালিয়ে চালগুলো জব্দ করেন। সেইসাথে চিরাম ইউনিয়ন পরিষদে থাকা বিতরণ না হওয়া ৩৪ বস্তা চালও জব্দ করে থানায় নিয়ে যান।

বারহাট্টা থানার এসআই আবু সায়েম বুধবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে জানান, এ ঘটনায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এখন মামলার অভিযোগ লিখা হচ্ছে। মামলা দায়েরের পর আসামিদের বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

ইউএনও ফারজানা আক্তার ববি বলেন, জব্দ চালের ব্যাপারে নিয়মিত মামলা রুজু করা হচ্ছে। এতে ডিলার ও ক্রেতাকে আসামি করা হবে। তবে ঘটনা তদন্তের পর প্রকৃত রহস্য জানা যাবে।

 

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।