নেত্রকোণায় নিজ বাসা থেকে হাত-পা বাধা বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার,নাতীসহ আটক-৩

বিশেষ প্রতিনিধি: নেত্রকোণা শহরের বিলপাড় এলাকার একটি বাসা থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় এক বৃদ্ধার লাশ নিজ ঘরের মেঝে থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার রাত সোয়া ১১টার দিকে শহরের নিউটাউন বিলপাড় থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত বৃদ্ধার নাম জোছনা বেগম (৭০)। তিনি ওই এলাকার মৃত আবুল মুন্সীর স্ত্রী।
এঘটনায় শহরের নিউটাউন এলাকায় ফারুক হোসেন মিল্টনের ছেলে সাম্মাম হোসেন সিনহা, শহরের পূর্বচকপাড়ার আব্দুল হকের হকের ছেলে সাব্বির হোসেন চয়ন ও জেলা সদরের কামাল হোসেনের রিয়াদ হাসান অনিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।
স্থানীয় ও পুলিশ জানায়, জোছনা বেগমের তিন ছেলের মধ্যে এক ছেলে বগুড়া, এক ছেলে বরিশাল থাকেন। তিনি বড় ছেলে মিল্টন মোল্লার সঙ্গে নিউটাউন বিলপাড়ের বাসায় বসবাস করতেন। ১০ দিন আগে কাজের সূত্রে মিল্টন বরিশাল যান। মিল্টনের স্ত্রীও জেলার আটপাড়ায় তার বাবার বাড়িতে যান। এ কারণে কয়েকদিন ধরে জোছনা বেগম বাসাটিতে একা ছিলেন। সোমবার মিল্টন বার বার ফোন করলেও তার মা ধরছিলেন না। এই খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে জোছনা বেগমের ভাই ফেরদৌস আহমেদ বাসার দরজার তালা ভেঙে ঘরে ঢুকে মেঝেতে জোছনা বেগমের হাত,পা বাঁধা লাশ পড়ে থাকতে দেখেন।
পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এ সময় ঘরের ভিতরে জিনিসপত্র এলোমেলো অবস্থায় ও স্টিলের আলমিরা খোলা ছিল।
নেত্রকোণার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লুৎফুর রহমান জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বৃদ্ধাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে নেত্রকোনা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। সদর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।এঘটনায় তিন জনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার রহস্য উদঘাটনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।