খালিয়াজুরীতে করোনা প্রতিরোধে স্বেচ্ছাসেবীদের গণসচেতনতা

খালিয়াজুরী প্রতিনিধি: দেশজুড়ে আবার বেড়েছে মহামারি করোনার প্রকোপ।প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা রেকর্ড ছাড়াচ্ছে। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে হাওরাঞ্চলে করোনা রোগীর সংখ্যা। ভয়াবহ এই অবস্থাতেও নেই সচেতনতার বালাই। চলছে ভয়হীন জীবনাচার। নেই সামাজিক সচেতনতা, নেই মাস্কের পরিপূর্ণ ব্যবহার। এমতাবস্থায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধে খালিয়াজুরী একাদশ ক্লাবের উদ্যোগে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) থেকে উপজেলার রাস্তা- ট্রলার ঘাট ও বাজারে জনসচেতনতায় কাজ করে যাচ্ছে। “আমরা সচেতন হই,অন্যকে নিরাপদ রাখি” এমন স্লোগানকে সামনে রেখে ক্লাবটির সদস্যরা সচেতনতামূলক প্রচারণা ও মাক্স বিতরণের মাধ্যমে নিজেদের নাগরিক দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। খালিয়াজুরী একাদশ ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আরাধন দত্ত রায় জানান, হাওরবাসীকে আগাম সতর্কতা অবলম্বন করার পাশাপাশি করোনাভাইরাস নিয়ে কোনো গুজবে কান না দিয়ে সরকারের দেওয়া দিকনির্দেশনা অনুসরণ করার জন্য সকলকে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।আমাদের এই সচেতনতা মূলক কার্যক্রম চলমান থাকবে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে খালিয়াজুরী উপজেলা সদরের “খালিয়াজুরী একাদশ ক্লাবের ” নেতৃত্ব দেন ক্লাবের সভাপতি ফুটবলার মোঃ আনোয়ার হোসেন। এসময় ক্লাবের সদস্য মোঃ আকির হোসেন, আপেল মাহমুদ, মাসুক রানা, সুকেশ সরকার, শিপন সরকার, সাগর মিয়া, প্রণব, সুজিত ও ডিজে কিবরিয়াসহ কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে দিনব্যাপী এই প্রচারণায় চালান। “খালিয়াজুরী একাদশ ক্লাবের সদস্য মোঃ আকির হোসেন বলেন,দিনে দিনে করোনা ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করেছে। আমাদের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হাওরদ্বীপ খালিয়াজুরী উপজেলা অত্যন্ত ঘনবসতি এলাকা। এখনই যদি জনগণকে সচেতন করা না যায়, তাহলে এই হাওরে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিতে পারে। তাই আমরা নাগরিক দায়িত্ব মনে করেই নিজ খরচে জনগণকে সচেতন করতে বেরিয়েছি। খালিয়াজুরী একাদশ ক্লাবের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমণে সারাদেশের ঝুঁকিপূর্ণ জেলার গুলোর মধ্যে নেত্রকোণা একটি।নেত্রকোণার খালিয়াজুরী উপজেলা প্রতিটি গ্রামেই ছড়িয়ে পড়ছে করোনা নানা উপসর্গ। হাওরবাসী একে ‘সিজন্যাল অসুখ ‘বলেই মনে করছেন। জ্বর,সর্দি -কাশি,গলা ব্যথা ও ডায়রিয়া দেখা দিলেও লোকজন ডাক্তার দেখাতে বা নমুনা পরীক্ষা দিতে অনীহা প্রকাশ করছেন।তাই এই গণসচেতনতা কার্যক্রম।আমরা সকলের সহযোগিতা চাই।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।