গোলায় আগুন লেগে পুড়ে গেছে শ্রমিকদের শতাধিক মণ ধান সহ সবকিছু

বিশেষ প্রতিনিধি: জেলার খালিয়াজুরী উপজেলার নগর ইউনিয়নের নয়াগাঁও গ্রামে ধান কাটা শ্রমিকদের গোলায় (থাকার অস্থায়ী ঘর) আগুন লেগে পুড়ে গেছে নগদ টাকা সহ প্রায় শতাধিক মণ ধান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ময়মনসিংহের নান্দাইল থেকে নেত্রকোণার খালিয়াজুরী হাওরাঞ্চলের নগর ইউনিয়নে ধান কাটতে যায়। প্রায় ২০/২৫ দিন আগে থেকে শ্রমের বিনিময়ে ধান নিয়ে হাওরের ধান কাটা শুরু করেন। শ্রমিকদের থাকার জন্য হাওরে অস্থায়ী ঘর তৈরি করে রাত্রি যাপন সহ শ্রমের বিনিময়ে পাওয়া ধান রাখা হয়। সোমবার দুপুরের পর ২০ জনের টিমের অন্য শ্রমিকরা ধান কাটতে গেলে রান্নার দায়িত্বে থাকা শ্রমিক সাইদুল মিয়া(৪০) দুপুরের রান্না করে ঘুমিয়ে গেলে চুলা থেকে অস্থায়ী ঘরে আগুন লেগে যায়। আগুন লাগার খবরে ওই গ্রামের শতাধিক মানুষ গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে গোলায় থাকা শ্রমিকদের প্রায় ১০০ মন ধান, ও নগদ ৫০ হাজার টাকা, কয়েকটি মোবাইল ফোন সেটসহ শ্রমিকদের এক মাসের খাদ্য সামগ্রী পুড়ে যায়। এ সময় ঘরে থাকা আসবাবপত্র সহ সবকিছু আগুনে পুড়ে গেছে।
নগর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আশুতোষ সরকার বলেন, শ্রমিকদের শ্রমের বিনিময়ে পাওয়া প্রায় শতাধিক মণ ধান সহ সবকিছু পুড়ে গেছে। থাকার আসবাবপত্র, অস্থায়ী ঘর নগদ টাকা, কয়েক মোবাইল ফোন সহ সবকিছু পুড়ে গেছে । ওই শ্রমিকরা খুব সমস্যায় পড়েছে।

এ বিষয়ে নেত্রকোণার জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আবদুর রহমান বলেন, খালিয়াজুরীর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএইচএম আরিফুল ইসলাম নির্দেশ দেয়া হয়েছে শ্রমিকদের খাবার সহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী দেয়ার। এছাড়া আহত শ্রমিককে চিকিৎসা ব্যবস্থার কথাও বলা হয়েছে।

 

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।