নেত্রকোণায় হানাদার মুক্ত দিবস পালিত

বিশেষ প্রতিনিধি: যথাযোগ্য মর্যাদায় নেত্রকোণায় পালিত হয়েছে ৯ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত দিবস। জেলা প্রশাসন ও মুক্তিযোদ্ধা জেলা ইউনিট কমান্ডের উদ্যোগে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে দিবসটি পালিত হয়।
এ উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, নেত্রকোনা জেলা ইউনিট কমান্ডের উদ্যোগে সকাল ১০টায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে কালেক্টরেট প্রাঙ্গণে প্রজন্ম শপথ স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
জেলা প্রশাসক ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা ইউনিট কমান্ডের প্রশাসক কাজি মোঃ আব্দুর রহমান প্রথমে স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। পরে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হাবিবা রহমান খান শেফালী, পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী, নেত্রকোনা পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান, সাবেক জেলা কমান্ডার নুরুল আমিন, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক তফসির উদ্দিন খান, সদর উপজেলা সংসদের সাবেক কমান্ডার আইয়ুব আলী, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সিঃ সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা হায়দার জাহান চৌধুরী ও সম্পাদক এডভোকেট সিতাংশু বিকাশ আচার্য্য, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি খায়রুল ইসলাম বাবুল ও সম্পাদক গাজী মোর্তুজা হোসেন কামাল, নেত্রকোনা জেলা কারাগারের জেল সুপার আব্দুল কদ্দুছ, নেত্রকোনা মহিলা পরিষদের সম্পাদক তাহেজা বেগম এ্যানি, মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সৈয়দা বিউটীসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
পরে জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে কাজি মোঃ আবদুর রহমানের সভাপতিত্বে নিহত শহীদদের স্মরণে ভার্চ্যুয়াল আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হাবিবা রহমান শেফালী, পুলিশ সুপার আকবর আলী মুনসি, জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার মোঃ নূরুল আমিন, আইয়ূব আলীসহ আরো অনেকেই।
১৯৭১ সালের এই দিনে শহরের বর্তমান কৃষি ফার্মে সন্মুখ যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন হয় নেত্রকোণা। শহীদ হন ৩ বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সাত্তার, আবদুল জব্বার ওরফে আবু খাঁ ও আবদুর রাশিদ।

 

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।