মোহনগঞ্জে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে নিহত ১ : লুটপাটের অভিযোগ

স্টাফ রির্পোটার: জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার খুরশিমুল এলাকায় দু’দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ, দোকানপাটে হামলা ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে কামরুল ইসলাম(২৫) নামে এক রিক্সাচালক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও চার-পাঁচ জন। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কামরুলের মৃত্যু হয়। রবিবার বিকেল থেকে মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত কয়েক দফায় এসব ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকাটিতে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, খুরশিমুল এলাকার সিয়াধার গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে ওয়াকিব ও রামপাশা গ্রামের শফিকুল ইসলাম ছবি’র মধ্যে গত রবিবার একটি বাইসাইকেল নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে শাহীন মিয়া, হেলিম মিয়া ও ওয়াকিব আহত হয়। পরদিন (সোমবার) সকালে সিয়াধার গ্রামের মৃত নিজাম উদ্দিনের ছেলে কামরুল ইসলাম রিক্সা নিয়ে বের হলে রামপাশা গ্রামের শফিকুল ইসলাম ছবি’র নেতৃত্বে একদল লোক তার ওপর অতর্কিতে হামলা চালায়। এতে কামরুল ও মনিরুল আহত হয়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কামরুলকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে মারা যান তিনি। অন্যদিকে আহত শাহীনকে মুমুর্ষ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এদিকে কামরুলের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে মঙ্গলবার সিয়াধার গ্রামবাসীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। দুপুরের দিকে কিছুলোক সংঘবদ্ধ হয়ে খুরশিমুল বাজারে চার-পাঁচটি দোকানে হামলা এবং লুটপাট চালায়। খবর পেয়ে মোহনগঞ্জ থানা থেকে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।
মোহনগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আহাদ খান জানান, এ ঘটনায় সোমবার রাতে সিয়াধার গ্রামের রুকন উদ্দিন বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলাটিই এখন হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হবে। ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত বলে জানান তিনি।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।