মদনে সেতু থেকে নৌকা সরাতে গিয়ে মাঝির মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার : নেত্রকোণার মদনের মগড়ী নদীর সেতুতে আটকে যাওয়া নৌকা সরাতে গিয়ে তৌহিদ মিয়া(৫৫) নামের এক মাঝির মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজেলা মগড়া নদীর শহীদ আব্দুল কদ্দুস সেতুর পাড়ে এ ঘটনা ঘটে। তৌহিদ মিয়া কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর উপজেলার দিঘির পাড় গ্রামের মৃত ওসমান মিয়ার ছেলে।
স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও নৌকায় থাকা অন্য মাঝিদের সূত্রে জানা যায়, নৌকা মালিক ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার মুসুল্লী গ্রামের  ফারুক মৌল্লার  এক বছরের জন্য তৌহিদ মিয়া ভাড়ায় আনে ব্যবস্যা করার জন্য। নেত্রকোণার দুর্গাপুরের সোমেশ্বরী নদী থেকে নৌ পথে বালু বোঝায় করে বরিশালের উদ্দ্যেশে রওনা হলে শুক্রবার সকালে মদন উপজেলার মগড়া নদীর দেওয়ার বাজার সংলগ্ন শহীদ আব্দুল কদ্দুছ সেতুতে নৌকাটি আটকে যায়। পরে সকাল থেকে সব ধরণের নৌ চলাচল বন্ধ থাকলে নৌকা ছুটানোর জন্য ট্রাকের সঙ্গে দড়ি বেধে টানাটানি করার এক পর্যায়ে তৌহিদ মিয়া নদীর পাড়ে পড়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে মদন হাসপাতালে নিয়ে এলে জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার শান্তুনু শাহা তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
সকাল থেকে নৌ চলাচল বন্ধ থাকায় মদন ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ব্রীজের নিছে আটকে যাওয়া নৌকা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানান, মদন ফায়ার সার্ভিয়ের ষ্ট্যাশন অফিসার আহমেদুল কবির।
মদন থানার ওসি মাসুদুজ্জামান জানান, তৌহিদ মিয়া নামে এক মাঝি মৃত্যুর সংবাদে হাসপাতালে পুলিশ প্রেরণ করা হয়েছে।
উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) উন্মে সালমা জানান, মগড়া নদীর দেওয়ান বাজার সংলগ্ন শহীদ আব্দুল কদ্দুছ সেতুতে নৌকা আটকে নৌ চলাচল বন্ধ রয়েছে। আটকে যাওয়া নৌকার মাঝি মারা গেছে। আমি ঘটনাস্থলে আছি। নৌকাটি সরানোর জন্য মদন ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট কাজ করছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।