নেত্রকোণায় পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু

বিশেষ প্রতিনিধি: নেত্রকোণায় পৃথক পৃথক স্থানে পুকুরের পানিতে ডুবে তিন শিশুর করুণ মৃত্যু হয়েছে।
স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আটপাড়া উপজেলার বানিয়াজান ইউনিয়নের মোবারকপুর গ্রামের সাদেক মিয়ার পুত্র আমীর হামজা (৬) ও তারই প্রতিবেশী হবি মোড়লের পুত্র সানি (৫) রবিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বাড়ীর সামনে খেলা করার সময় সকলের অগোচরে পাশ্ববর্তী পুকুরের পানিতে পড়ে যায়। পরে পরিবারের লোকজন তাদেরকে কোথাও দেখতে না পেয়ে চারপাশে খোঁজাখুজি শুরু করে। এরই এক পর্যায়ে পরিবারের লোকজন পুকুরে তাদের লাশ ভাসতে দেখে সেখান থেকে উদ্ধার করে দ্রুত আটপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষনা করে।
অপরদিকে মদন উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের ছত্রকোনা গ্রামের শামীম কবির খান রেনু মিয়ার বাক প্রতিবন্ধী শিশু তোয়া আক্তারের (৬) লাশ রবিবার সকালে বাড়ীর পাশ্ববর্তী পুকুরে ভাসতে দেখে উদ্ধার করে।
মৃতের পরিবার ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ছত্রকোনা গ্রামের বাক প্রতিবন্ধী শিশু কন্যা তোয়া আক্তার অন্যান্য দিনের ন্যায় শনিবার রাতে পরিবারের সঙ্গে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। রবিবার সকালে পরিবারের লোকজন ঘুম থেকে উঠে তাকে বিছানায় দেখতে না পেয়ে চারপাশে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। এক পর্যায়ে বাড়ীর সামনে পুকুরে শিশুটির লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে বাড়ীতে নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে মদন থানার অফিসার ইনচার্জ আহমেদ কবীর হোসেনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।