নেত্রকোণায় স্মরণসভায় বক্তারা: ফজলুর রহমান খান ছিলেন আপোষহীন সংগ্রামী নেতা

বিশেষ প্রতিনিধি: মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, নেত্রকোণার বর্ষিয়ান রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক প্রয়াত এমপি জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান খান ছিলেন আপোষহীন একজন সংগ্রামী নেতা।
তিনি অন্যায়ের কাছে কোনদিন মাথা নত করেন নি। রাজনীতি করতে গিয়ে তিনি অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। জীবদ্দশায় দল ও সাধারণ মানুষের কল্যাণে নিবেদীত ভাবে কাজ করে গেছেন এই মহান নেতা। তার অবদান কোনদিন ভুলা যাবে না।
শনিবার বিকেলে নেত্রকোণা পাবলিক হলে মরহুম ফজলুর রহমান খান ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মরণসভা উদ্যাপন কমিটির উদ্যোগে স্মরণসভায় বক্তারা এ সব কথা বলেন। স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হাবিবা রহমান খান শেফালী।
মরহুম ফজলুর রহমান খান স্মরণসভা উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যক্ষ গোলাম রসুল তালুকদারের সভাপতিত্বে যুগ্ন আহ্বায়ক আবুল মনসুর আহমেদ এর সঞ্চালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সাবেক এমপি ছবি বিশ্বাস, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার রায়, পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম খান, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান খান রতন, জেলা আওয়ামীলীগ যুগ্ম সম্পদক নূর খান মিঠু, সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক ভজন সরকার, সামছুর রহমান (ভিপি লিটন) কেন্দুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, কলমাকান্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি চন্দন বিশ্বাস, কৃষকলীগের সভাপতি কেশব রঞ্জন সরকার, বারহাট্টা উপজেলা চেয়ারম্যান মাঈনুল হক কাশেম, পূর্বধলা উপজেলা চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম সুজন, মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক বাচ্চু, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা গাজী মোজাম্মেল হোসেন টুকু, আওয়ামীলীগ নেতা মুজিবুল আলম হীরা, এসবি শাহিন,অর্পিতা খানম সুমিসহ জেলা আওয়ীমীলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।
এর আগে জেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্য্যালয়ে কালো ব্যাজ ধারণ করে নেতাকর্মীরা জাতীয়, দলীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন করে। পতাকা উত্তোলনের পর মরহুম ফজলুর রহমান খানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করা হয়। শ্রদ্ধাঞ্জলী শেষে প্রয়াত এমপির গ্রামের বাড়ি কুনিয়ায় কোরআন খানি, দোয়া মাহফিল ও কবর জিয়ারত অনুষ্ঠিত হয়।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।