পূর্বধলায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই উপজেলার গ্রামবাসীর মাঝে উত্তেজনা

বিশেষ প্রতিনিধি: ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে নেত্রকোণার পুর্বধলা উপজেলার কাপাশিয়া ও পাশ্ববর্তী ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার পোড়াকান্দুলিয়া গ্রামবাসীর মাঝে চরম উত্তেজনা ও তমতমে অবস্থা বিরাজ করছে। বুধবার সকাল থেকেই দুই উপজেলার কংশ নদীর এপার ওপারের মানুষ লাঠি ও দেশীয় অস্ত্রাদি নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে এবং নদীর উপর ব্রিজটিতে গাছের ডাল ও বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেড দেয়ায় দুই উপজেলার মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ রয়েছে। এপার বা ওপারের মানুষকে পেলে শুরু হয়ে যেতে পারে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার বিকেলে পূর্বধলার ঘাগড়া ইউনিয়নের কাপাশিয়া স্কুল মাঠে বোলিয়াকান্দা (পূর্বধলা) বনাম পোড়াকান্দুলিয়া (ধোবাউড়া) গ্রামের সাথে এক প্রীতি ফুটবল ম্যাচ চলাকালীন সময়ে কথা কাটাকাটি হয়। এ নিয়ে দু’পক্ষের মাঝে তুমুল ঝগড়া সৃষ্টি হলে কাপাশিয়া ঈদ গাঁ মাঠের মসজিদ ভাঙচুর করে পোড়াকান্দুলিয়া গ্রামের দল। এতে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এ প্রেক্ষিতে কাপাশিয়া এলাকার যুব সমাজ বাঁধা দিলে দু’পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়।
ফের সন্ধ্যায় পোড়াকান্দুলিয়া গ্রামের দোলেয়ার, বাবলু, মিয়া হোসেন সহ শতাধিক লোকজন দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে কাপাশিয়া ব্রীজ অতিক্রম করে বাজারের বেশ কয়েকটি দোকানপাটে হামলা চালায়। এতে কাপাশিয়া এলাকাবাসী বাঁধা দিলে বেশ কয়েকজনকে গুরুতর আহত হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নদীর দুই পারের মানুষের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে এবং ব্রিজ দিয়ে দুই উপজেলায় যাতায়াতের সকল যান চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ রয়েছে।
কাপাশিয়া বাজার বণিক সমিতির সভাপতি আহসান, ব্যবসায়ী লিজন মিয়া সহ এলাকাবাসীর দাবী টিনের তৈরী মসজিদসহ এলাকার অনেক দোকানপাটে হামলা করেছে। ক্ষতিপুরণ সহ সন্ত্রাসী হামলার সুষ্ঠু বিচার না হওয়া পর্যন্ত ময়মনসিংহের ধোবাউড়া ও নেত্রকোণার পূর্বধলা উপজেলার সাথে সকল যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকবে। বুধবার সন্ধ্যায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায় কাপাশিয়াবাসী।
পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদূর রহমান দু’পক্ষের সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, যাতে পরিস্থিতির অবনতি না হয় তাই এলাকায় পুলিশ মোতায়ন রয়েছে। কোন লিখিত অভিযোগ পায়নি। বর্তমানে দুপক্ষের সাথে আলোচনায় উত্তেজনা স্বাভাবিক করা হয়েছে। তবে দু’পক্ষকে নিয়ে আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) আবারও আলোচনায় বসা হবে বলে তিনি জানান।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।