কেন্দুয়ায় কৃষকের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সবজি বীজ বিতরণ করছেন কৃষি কর্মকর্তা

বিশেষ প্রতিনিধি :করোনা পরবর্তী সময়ে সবজির চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলায় কৃষকের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কুমড়া, ঢেঁড়স, শিম, লাউ, পেপে, ডাটা শাক ও লালশাকসহ বিভিন্ন জাতের সবজি বীজ বিতরণ করছেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান।এ সময় কৃষকদের হাতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী মাস্ক ও জীবাণুনাশক সাবানও বিতরণ করা হয়।

কৃষি কর্মকর্তার ব্যক্তিগত উদ্যোগে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সবজি বীজ বিতরণের পাশাপাশি বীজগুলো কিভাবে রোপন করতে হবে এবং রোপনের পর কিভাবে তার পরিচর্যা করতে হবে সে বিষয়েও কৃষকদের পরামর্শ দিচ্ছেন তিনি।

সোমবার (১৮ মে) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকেল তিনটা পর্যন্ত পৌর শহরের বাদে আঠার বাড়ি তুরুকপাড়া, মাসকা ইউনিয়নের রায়পুর, ডুপিচান্দালী ও সান্দিকোনা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের কৃষকদের বাড়িতে গিয়ে এসব সবজি বীজ কৃষাণ ও কৃষাণীদের হাতে তুলে দেন।

অপরদিকে কৃষি কর্মকর্তার পক্ষে উপজেলার রোয়াইল বাড়ি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের কৃষকের বাড়িতে গিয়ে সবজি বীজ বিতরণ করেন উপজেলা কৃষি সম্প্রাসারণ কর্মকর্তা মর্জিনা আক্তার।

এ বিষয়ে সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোহাম্মদ আনিসুজ্জামানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে। করোনা দুর্যোগের পর মানুষের মাঝে সবজির সংকট মোকাবিলার জন্য উপজেলার কৃষকদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে নানা জাতের সবজির বীজ বিনামূল্যে বিতরণ করছি। এছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও নির্দেশ দিয়েছেন যাতে বাংলাদেশে কোনো জায়গা পতিত না থাকে। সে লক্ষেই আমরা কৃষকদের বাড়ি গিয়ে বিনামূল্যে সবজি বীজ দিচ্ছি। পাশাপাশি বীজ রোপন ও রোপনের পর কিভাবে পরিচর্যা করতে হবে তাও পরামর্শ দিচ্ছি। কৃষাণ-কৃষাণীরা এসব সবজি বীজ বাড়ির আশেপাশের পতিত জায়গায় রোপন করলে আশা করি করোনা দুর্যোগে সবজির কোনো সংকট দেখা দেবে না। কৃষকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এভাবে সবজি বীজ বিতরণ অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

 

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।