রাজাকারমুক্ত দেশ গড়ার অঙ্গীকারে নেত্রকোণা মুক্ত দিবস পালিত

বিশেষ প্রতিনিধি: মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা আর সাম্প্রদায়িকতা, জঙ্গীবাদ ও রাজাকারমুক্ত সমৃদ্ধ দেশ গড়ার দীপ্ত অঙ্গীকারের মধ্য দিয়ে সোমবার নেত্রকোণায় হানাদার মুক্ত দিবস পালিত হয়েছে।
নেত্রকোনা মুক্ত দিবস উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নেত্রকোণা জেলা ইউনিট কমান্ডের উদ্যোগে সোমবার সকাল ১০টায় নেত্রকোণা কালেক্টরেট ভবন প্রাঙ্গণে ‘প্রজন্ম শপথ’ ভাষ্কর্যে পুষ্পস্তবক অর্পনের মধ্য দিয়ে দিবসের কর্মসূচী শুরু হয়। সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে সাতপাই স্মৃতিসৌধ ও শহীদদের কবরস্থানে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে সকল শহীদদের প্রতি বিন¤্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়। সকাল ১১টায় স্থানীয় পাবলিক হল প্রাঙ্গণ থেকে জেলা শহরে একটি বর্ণাঢ্য বিজয় র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীটি জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পূনরায় পাবলিক হলে এসে শেষ হয় সেখানে জাতীয় সঙ্গীতের তালে তালে জাতীয় পতাকা ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে পাবলিক হলে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হাবিবা রহমান খান শেফালী। অন্যান্যেনের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী, পৌর মেয়র আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান, জেলা আওয়ামীলীগের সিঃ সহ-সভাপতি জিপি এডভোকেট আমিরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক জেলা কমান্ডার নুরুল আমিন, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ওসমান গনি তালুকদার, মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক বাচ্চু, সদর উপজেলার সাবেক কমান্ডার আইয়ুব আলী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি খায়রুল ইসলাম বাবুল, সাধারণ সম্পাদক গাজী মোর্তুজা হোসেন কামাল, টিম নৌকার সমন্বয়কারী এ কে এম আজহারুল ইসলাম অরুণ প্রমূখ।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।