কেন্দুয়ায় পিতা-মাতাকে মারধরের অপরাধে ছেলের ২ বছরের কারাদন্ড

বিশেষ প্রতিনিধি: নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় পিতা-মাতার প্রতি অসম্মান ও মারধরের অপরাধে শেখ গাজ্জালী হাসান (৩২) নামে এক যুবককে ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। শেখ গাজ্জালী উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের উজিয়ালপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা বদর উদ্দিনের ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার (২২ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উজিয়ালপুর গ্রামে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আল ইমরান রুহুল ইসলাম এবং কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) রাশেদুজ্জামান।
কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান রুহুল ইসলাম জানান, উজিয়াপুর গ্রামের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা বদর উদ্দিনের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গ্রামে গিয়ে তদন্তে জানা যায়, শেখ গাজ্জালী টাকা পয়সা ও অন্যান্য তুচ্ছ কারনে পিতা-মাতার প্রতি অশোভন আচরণ ও প্রায় সময় মারধর করেন। ঘটনার দিন মাকে কুড়াল দিয়ে মারতে দৌড়ানি দেন এবং বাবাকে ছুরা দিয়ে মারতে উদ্ধত হন। এ ব্যাপারে তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে স্বীকার করে। এঘটনায় পিতা-মাতার কাছে তাকে ক্ষমা চাইতে বললে রাজি না হয়ে তার ফাঁসি হলেও ক্ষমা চাইবে না বলে জানান। অনেক বুঝানোর পরেও রাজি না হওয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দন্ড বিধির ৩৫৫ ধারা মোতাবেক তাকে ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়। ওসি জানান, শেখ গাজ্জালীকে শনিবার দুপুরে নেত্রকোণা জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।