একটি মহল গুজব রটিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চাচ্ছে-ডিআইজি

বিশেষ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডি আই জি নিবাস চন্দ্র মাঝি বিপিএম (সেবা) বলেছেন, একটি মহল গুজব রটিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে পুলিশ বাহিনীকে সতর্ক থাকতে হবে। গুজব রটনাকারীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনতে হবে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। মাদক ব্যবসার যাতে যত প্রভাবশালী ব্যাক্তিই জড়িত থাকুক না কেন, তাদেরকে গ্রেফতার করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। মাদক সাথে যদি পুলিশের কোন সদস্য জড়িত থাকে তার বিরুদ্ধের কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।
তিনি বলেন, সড়কে শৃংখলা ফিরিয়ে আনতে সড়ক আইন প্রনয়ণ করা হয়েছে। প্রথমেই আমরা জনগণকে আইনটির ব্যপারে জনসচেতনতা বাড়াচ্ছি। পরবর্তী পর্যায়ে সরকারের নির্দেশে আইনটি বাস্তবায়ন করা হবে। তাই সকলের উচিত আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া। তিনি বৃহস্পতিবার দুপুরে নেত্রকোনা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের মেইন গেইট, ড্রেন ও ওয়াকওয়ে নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপনের আগে সম্মেলন কক্ষ্যে ই-ট্রাফিকিং ব্যবস্থা চালু, গ্রামীণ ফোন ও ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের সাথে চুক্তি, মাদক ও গুজবের ব্যাপারে জন সচেতনতা সৃষ্টি বিষয়ক এক মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন।
পুলিশ সুপার আকবর আলী মুনসী’র সভাপতিত্বে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোঃ শাহজাহান মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের কার্য নির্বাহী সহ-সভাপতি সেকান্দর ই আজম, আইসিটিএলের প্রতিনিধি আরাফাত হোসেন, প্রেসক্লাব সম্পাদক শ্যামলেন্দু পাল প্রমূখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুল আলম, গ্রামীন ফোনের ব্যবস্থাপক হেলাল উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল আমিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ফখরুজ্জামান জুয়েলসহ সকল থানার অফিসার ইনচার্জ, ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ ও সাংবাদিকবৃন্দ।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।