পূর্বধলায় বাস-প্রাইভেট কার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১

পূর্বধলা প্রতিনিধি: নেত্রকোণার পূর্বধলায় বাস-প্রাইভেট কার মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাইভেট কার যাত্রী নাজনীন আক্তার (৩০) নামের এক নারী নিহত ও চালকসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন।
শনিবার বিকেলে নেত্রকোণা-ময়মনসিংহ আঞ্চলিক মহাসড়কে পূর্বধলা উপজেলার ইসবপুর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
আহতরা হলেন নিহত নাজনীন আক্তারের স্বামী শাহজাহান কবির (৪১) মেয়ে সায়েরা কবির আরা (১৪), ছেলে সাঈদ কবির আবিদ (১১) ও সাইনাথ কবির আইরাত (৪) এবং কার চালক আজিজুল বিশ্বাস (৩৩)। কার চালকের ঠিকানা জানা না গেলেও একই পরিবারে নিহত ও আহতদের বাড়ি নেত্রকোণার মদন উপজেলার চানগাঁও নয়াপাড়া গ্রামে।
পুলিশ সূত্রে জানাযায়, শনিবার শাহজাহান কবির ভাড়ায় চালিত একটি প্রাইভেট কারযোগে ঈদ উদযাপন করতে সপরিবারে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি যাচ্ছিলেন। বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে পূর্বধলা উপজেলার ইসবপুর নামক এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা ঢাকাগামী শাহজালাল পরিবহনের একটি বাসের (ঢাকা মেট্রো-ব ১১-০৮৪৯) সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।
এতে প্রাইভেট কারটি (ঢাকা মেট্রো-খ ১২-০৭৩৩) ছিটকে সড়কের পাশে পড়ে গেলে কারে থাকা একই পরিবারের চারজনসহ কার চালক আহত হয়।
স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে নাজনীন আক্তার মারা যায়।
শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে পুণিশ ফাঁড়ির ইন-চার্জ এসআই মো. নাজমুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন বাসটি আটক করলেও চালক পালিয়ে যায়।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।